জিয়ানগরের উপকূলীয় অঞ্চলে উত্পাদিত ডাবের কদর ঢাকায় বেশি। এখানকার ডাব নৌ ও স্থলপথে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ করে পাইকাররা।

উপজেলার সেউতিবাড়ীয়া গ্রামের ডাবের পাইকার টুলু জানান, পাইকারীভাবে ১০ থেকে ১৫ টাকা দরে বিক্রি হয় প্রতিটি ডাব। 

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার প্রায় ১৫০ হেক্টর জমিতে নারিকেলের চাষ হয়। এখানকার চাষিরা স্থানীয় জাতের নারিকেলের চাষ বেশি করে থাকেন। স্থানীয় জাতের প্রতিটি ডাবে প্রায় ৪০০ গ্রাম পানি হয়ে থাকে। এ অঞ্চলের উত্পাদিত মোট নারিকেলের ৭০ ভাগ ডাব হিসেবে ব্যবহূত হয়। 

উপজেলা কৃষি অফিসার অমিতাভ মন্ডল জানান, এ উপজেলায় নারিকেলের উত্পাদন বেশ ভাল। অধিকাংশ চাষি ডাব আকারে তাদের নারিকেল বিক্রি করে লাভবান হচ্ছেন। আমরা নারিকেলের উত্পাদন বৃদ্ধির জন্য চাষিদের বছরে দু'বার সার প্রয়োগ এবং গাছ পরিষ্কার রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকি।

উত্তর সমূহ